কোমলমতি মারমা শিক্ষার্থীদের জন্য মাতৃভাষার বই রচয়িতা শৈফোচিং মারমা (৬৪) আর নেই। সোমবার (১৭ ফেব্রুযারী), বান্দরবান সদর উপজেলার রেইছা থলি পাড়ার নিজ বাড়িতে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

শৈফোচিং মারমার বড় ছেলে মংবু মারমা জানান, ‘সোমবার বিকেলে কক্সবাজারের এক হাসপাতাল থেকে তাকে বাড়িতে আনা হয়। পরের দিন উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামের কোনো এক হাসপাতালে ভর্তি করার কথা ছিল, কিন্তু সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।’

জানা যায়, সত্তর দশকে বার্মার কমিউনিস্ট পার্টির সঙ্গে তিনি সম্পৃক্ত ছিলেন। সেসময় তিনি বিভিন্ন জাতিসত্তার মুক্তির আন্দোলনে সক্রিয় ছিলেন।

পরে ১৯৮৮ সালে বান্দরবানের রেইছাতে ফিরে এসে মারমা জনগোষ্ঠীর ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি বিষয়ে লেখালেখি শুরু করেন। তিনি মাতৃভাষায় কবিতা ও ছড়া লিখতেন। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)-র প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মারমা ভাষা শিক্ষার অন্যতম লেখক শৈফোচিং বাংলার পাশাপাশি মারমা, বার্মিজ ও ইংরেজী ভাষাও ভাল জানতেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here