ধর্ষণ
প্রতীকি ছবি

জনজাতির কন্ঠ ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মধুপুরে আব্দুল মান্নান নামের যুবকের বিরুদ্ধে এক আদিবাসী কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ফুলবাগচালা ইউনিয়নের হাগুড়াকুড়ি গ্রামের কোচ-বর্মণ সম্প্রদায়ের ওই কিশোরীকে গত বুধবার থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এ ঘটনার পরদিন বৃহস্পতিবার থানায় মান্নানের বিরুদ্ধে অপহরণের লিখিত অভিযোগ করেন মেয়েটির বাবা। রোববার রাতে অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করেছে থানা পুলিশ। অভিযুক্ত মান্নান একই ইউনিয়নের শবকচনা গ্রামের হাতেম আলীর ছেলে।

মেয়ের পরিবারের লোকজনদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ওই কিশোরী স্থানীয় পীরগাছা সেন্ট পৌলস উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে মান্নান তাকে প্রায়ই উত্যক্ত করতো; অপহরণের হুমকি দিত। এ বিষয়ে মেয়েটি দুই মাস আগে নিজেই মধুপুর থানায় জিডি করেছিল। বুধবার রাতে মেয়েটি নিখোঁজ হওয়ার পর অনেক খোঁজ করেও না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা মান্নানের বাড়ি যান; তবে সেখানে কাউকে পাওয়া যায়নি।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিক কামাল বলেন, পুলিশ অভিযুক্ত মান্নানকে গ্রেপ্তার ও অপহৃত কিশোরীকে উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছে।

ছয় দিনেও উদ্ধার না হওয়ায় হতাশ মেয়ের পরিবার। কিশোরী আদিবাসী মেয়ের বাবা বলেন, তার মেয়েকে আব্দুল মান্নান প্রায় উত্ত্যক্ত করত ও অপহরণের হুমকি দিত।

এদিকে ওই কিশোরীকে দ্রুত উদ্ধারের দাবি জানিয়েছেন মধুপুর কোচ আদিবাসী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গৌরাঙ্গ বর্মণ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here