ছবিটি প্রতীকি

শেরপুরের সীমান্তবর্তী নালিতাবাড়ী উপজেলার গারো পাহাড় এলাকায় বুনো হাতির তাণ্ডবে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে সেখানকার অধিবাসীরা। উপজেলার খলচান্দার কোচপাড়ায় প্রতিরাতে বন্যহাতির তাণ্ডব শুরু হয়েছে। ফলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে পাহাড়ি এলাকায় বসবাসরত অধিবাসীদের মাঝে। আতঙ্কগ্রস্থ গ্রামবাসী রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে হাতির আক্রমণ ঠেকাতে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতীয় ১১১২ নং সীমান্ত পিলারের ডালুকোনা-খলচান্দা থেকে ১১১৩ নং সীমান্ত পিলারের সমশ্চূড়া পর্যন্ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গ্রামে বিচরণ করা বন্যহাতির দলটিকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী নির্মল কোচ (৪৫) ও দুঃশাসন কোচ (৩২) জানান, বাড়ির উত্তর পূর্ব দিকে ডালুকোনা পাহাড়ে গরু আনতে গেলে বন্যহাতির দলটি দেখতে পাওয়া যায়। এসময় হাতি তাড়ানোর জন্য খলচান্দা কোচপল্লীতে খবর পাঠানো হয়। পরে গ্রামবাসী হাততালি, হৈ-হুল্লুর চিৎকার ও হ্যান্ড মাইকের সাহায্যে শব্দ করে সমশ্চূড়া পাহাড়ের দিকে তাড়িয়ে দিয়েছে।

জানা যায়, ২০০১ সাল থেকে প্রতিবছর এই পাহাড়ি এলাকায় বন্যহাতি তাণ্ডব করে। প্রায় ২০ বছর অতিবাহিত হলেও সরকারিভাবে কার্যকরী কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here