মৌলভীবাজারের বড়লেখায় বিপন্ন সজারু হত্যার দায়ে সাঁওতাল আদিবাসী সম্প্রদায়ের ৯ শিকারিকে জেল-জরিমানা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার (১৪ নভেম্বর) রাতে মাধবকুণ্ড ইকোপার্কের বাজারিছড়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামীম আল ইমরান আদালত পরিচালনা করেন।

এসময় সজারু হত্যায় সহায়তা করার অপরাধে উকিল সাঁওতাল (৩৫), বুধু সাঁওতাল (২৬), ওমেশ সাঁওতাল (৩০), রমেশ সাঁওতাল (৩২), কার্তিক সাঁওতাল (৩৫), রাম সাঁওতাল (৩০) ও কৃষ্ণ সাঁওতালকে (৩৫) ১০ হাজার টাকা করে মোট ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। অন্যদিকে, সজারু হত্যায় সরাসরি জড়িত থাকায় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ২০১২ অনুসারে বিওসি কেছরিগুল এলাকার সুবল ভূমিজ (২৫) ও জগ রবিচন্দ্রকে (২৫) এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রাতেই তাদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালতের অভিযানে সহায়তা করেন বনবিভাগের বড়লেখা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস ও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হযরত আলী প্রমুখ।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, পাখি, বন্যপ্রাণী হত্যা এবং পাচারের বিরুদ্ধে সর্বসাধারণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিতে ইতোমধ্যে আমরা কিছু উদ্যোগ নিয়েছি। এতে ইতিবাচক ফলাফল আসতে শুরু করেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here