ভানুয়াতোর আদিবাসী

যুক্তরাজ্যের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে শোকাহত পুরো ব্রিটেনের অধিবাসী। বিশ্বনেতারা শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে পাঠিয়েছেন শোকবার্তা। এবার তাদের সঙ্গে যোগ দিলেন প্রশান্ত মহাসাগরের এক বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ভানুয়াতোর আদিবাসী সম্প্রদায়। 

দশক ধরে, ভানুয়াতো দ্বীপের তান্নার দুই গ্রামের আদিবাসীরা ডিউক অব এডিনবরাকে আধ্যাত্মিক ঈশ্বর মেনে পূজা দিয়ে আসছে। কিন্তু হঠাৎ পূজনীয় ব্যক্তিকে হারিয়ে শোকাহত তারা। সোমবার প্রিন্স ফিলিপ স্মরণে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দ্বীপটির আদিবাসীরা জড়ো হয়ে আনুষ্ঠানিক শোক পালন করেছেন।

রয়টার্সের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে আদিবাসীদের নেতা ইয়াপা শোক জ্ঞাপন করেছেন। তিনি বলেন, ‘তান্না দ্বীপের অধিবাসী ও ইংরেজদের সঙ্গে বন্ধন খুবই শক্তিশালী। আমরা ইংল্যান্ডের জনগণ ও রাজ পরিবারকে শোকবার্তা পাঠাচ্ছি।’ 

গত শুক্রবার ৯৯ বছর বয়সে উইন্ডসর ক্যাসেলে শান্তিতে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন প্রিন্স ফিলিপ। ‘ডিউক অব এডিনবরা’ ছিলেন রানির দীর্ঘদিনের সঙ্গী। এই দম্পতি ৭৩ বছর একসঙ্গে জীবন কাটিয়েছেন।

আগামী শনিবার এক ঐতিহ্যবাহী ও জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। তবে এই অনুষ্ঠানে রাজপরিবারের খুব কম সংখ্যক সদস্য উপস্থিত থাকবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here