বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত পার্বত্যাঞ্চলে রয়েল বেঙ্গল টাইগার ছাড়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। পাহাড়ে বাঘ পুনঃপ্রবর্তন করা হলে তারা সেখানকার পরিবেশের সাথে মানিয়ে চলতে পারবে কিনা তা খতিয়ে দেখতে ইতোমধ্যেই একটি সমীক্ষার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বিবিসি বাংলার খবর।

প্রধান বন সংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরী বলছেন, বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলের ওই বনে বাঘের থাকার উপযোগী পরিবেশ ও খাদ্য আছে কি-না এবং একই সঙ্গে সেখানে বাঘের জন্য কোনো হুমকি আছে কি-না তা সমীক্ষা করে দেখা হবে।

তিনি আরও বলেন, এই সমীক্ষা চালানো হবে বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞের মাধ্যমে। তারা ট্র্যাকিং করে দেখবেন পার্বত্য অঞ্চলে ইতোমধ্যেই বাঘের উপস্থিতি আছে কি-না। না থাকলেও তাদের আবাসস্থল ও খাদ্যের পরিবেশ আছে কি-না। একই সাথে দেখা হবে যে বাঘ সেখানে ছাড়লে তারা টিকবে কি-না, সারভাইভ করবে কি-না।

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে বাঘ নিয়ে যে ফিজিবিলিটি স্টাডিজ চালানোর প্রস্তাব করা হয়েছে, সেটি বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় অনুমোদন করেছে। খুব শীঘ্রই বিশেষজ্ঞদের দায়িত্ব দিয়ে আগামী জুনের মধ্যে সমীক্ষাটি শেষ করা হবে বলে জানা গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here