প্রতীকি ছবি

কালিদাস রায়, নাটোর: নাটোর সদর উপজেলায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সোনামনি পাহান (১৫) নামের এক আদিবাসী স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। রবিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার শংকরভাগ গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। সোনামনি একই এলাকার আনন্দ পাহানের মেয়ে এবং দরাপপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

পুলিশ, পরিবারের লোকজন এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার শংকরভাগ গ্রামের একটি বিয়ে বাড়ি থেকে বাড়ি ফিরে যায় সোনামনি। পরে পরিবারের লোকজনের অগোচরে বাড়ির পাশের একটি আম গাছের ডালের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় সে। আশেপাশের লোকজন টের পেয়ে তাকে মূমুর্ষূ অবস্থায় উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

পরে সোমবার দুপুরে নাটোর সদর হাপাতাল মর্গে নিহতের মরদেহের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আত্মহত্যার কারণ জানতে পারেনি পুলিশ।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here