নিজস্ব প্রতিবেদক: নেত্রকোনার দুর্গাপুরে হাজং মাতা রাশিমণি মেলার উদ্বোধন হয়েছে। শুক্রবার (৩১ জানুয়ারী), উপজেলার কুলগড়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বহেরাতলী গ্রামে এ মেলার উদ্বোধন হয়।

হাজং মাতা রাশিমনি কল্যাণ ট্রাস্টের আয়োজনে মেলার উদ্বোধন করেন সংগ্রামী আদিবাসী নারী নেত্রী কুমুদিনী হাজং। পরে টঙ্ক আন্দোলনের প্রথম শহীদ রাশিমণির স্মৃতিস্তম্ভে বিভিন্ন সংগঠন, সর্বস্তরের মানুষ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়।

বিকালে কমরেড রাশিমণি হাজং’র জীবনাদর্শ নিয়ে আলোচনা সভা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান সুব্রত সাংমা, বাংলাদেশ হাজং উন্নয়ন সংগঠনের নেতা পল্টন হাজং, লিটন হাজং, বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমির পরিচালক স্বপন হাজং প্রমুখ।

কমরেড রাশিমণি হাজং’র স্মৃতিস্তম্ভে বিভিন্ন সংগঠনের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে এ মেলা হাজং সম্প্রদায়ের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন। ৭ দিনব্যাপী আয়োজিত মেলার বিভিন্ন সময় আলোচনা সভা, রচনা, চিত্রাঙ্কন, হা-ডু-ডু খেলা, লোকজ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, নারী পথ প্রদর্শকদের ভিডিও প্রদর্শন করা হবে।

এ মেলা শেষ হবে ৬ ফেব্রুয়ারী। মেলার প্রতিদিন সন্ধ্যায় হাজং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে বলে আয়োজক সূত্রে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত: ১৯৪৮ সালের ৩১ জানুয়ারী টঙ্ক প্রথা বিরোধী আন্দোলনে রাশিমণি হাজং পুলিশের গুলিতে নিহত হন। মহিয়সী এই নারী হাজং সম্প্রদায়ের কাছে মাতা হিসেবে পরিচিত।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here