প্রতিকী ছবি

দিনাজপুরে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় আদিবাসী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। দিনাজপুর জেলা দায়রা স্পেশাল জজ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের হাকিম শরিফ উদ্দীন আহম্মেদ সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বুধবার (১৪ অক্টোবর), দুপুরে এই রায় দেন।

কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত ওই আদিবাসী যুবকের নাম রবি সরেন। বীরগঞ্জ উপজেলার মৌ গ্রামে তাঁর বাড়ি।

জানা যায়, ২০১৫ সালের ২ সেপ্টেম্বর রবি সরেন ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বীরগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে গতকাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

দিনাজপুর আদালত পুলিশের পরিদর্শক ইসরাইল হোসেন জানান, ২০১৫ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুপুরে রবি সরেন পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নিজ বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে রবি সরেন পালিয়ে যান। পরদিন মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে রবি সরেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন। এরপর বীরগঞ্জ থানা পুলিশ রবি সরেনকে আটক করে।

একই বছরের ২২ সেপ্টেম্বর বীরগঞ্জ থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমজাদ হোসেন প্রধান মামলার তদন্ত রিপোর্ট রবি সরেনের বিরুদ্ধে আদালতে পেশ করেন। ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে গতকাল এ রায় দেয়া হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here