আদিবাসী যুব সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হল বাংলাদেশ আদিবাসী যুব ফোরামের সম্মেলন। শুক্রবার (১৯ মার্চ), সকাল ১০.৩০ ঘটিকায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত মুক্তিযুক্ত জাদুঘর অডিটোরিয়ামে এ সম্মেলন হয়।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং, নাগরিক উদ্যোগের নির্বাহী পরিচালক জাকির হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. জোবাইদা নাসরীন কনা, আদিবাসী নারী নেটওর্য়াকের সদস্য সচিব চঞ্চনা চাকমা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. রোবায়েত ফেরদৌস প্রমুখ।

সংগঠনটির সদস্য সচিব আন্তোনি রেমার সঞ্চালনা ও আহ্বায়ক অনন্ত বিকাশ ধামাইয়ের সভাপতিত্বে সভায় আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আদিবাসী মানুষকে নতুন স্বপ্ন দেখতে হবে। রাষ্ট্র যুবদের জন্য এখনো আনন্দময় পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারেনি। কিন্তু স্বপ্ন নিয়ে আগামীর দিনে এগিয়ে যেতে হবে। এই এগিয়ে যাওয়ায় আদিবাসী যুবাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে হবে।

অধ্যাপক ড. রোবায়েত ফেরদৌস বলেন, আদিবাসী তরুণদেরকে নিজেদের অধিকারের জন্য সংগঠিত হতে হবে। তরুণ সমাজকে মানব মুক্তি সম্পর্কে জানতে হবে। তাঁদেরকে অনেক বেশি বই পড়তে হবে। সময়কে কাজে লাগাতে হবে।

স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তি হওয়ার পিছনে আদিবাসীদের বিশেষ অবদান রয়েছে। কিন্তু এ পঞ্চাশ বছরেও আদিবাসীরা এখনও সাংবিধানিক স্বীকৃতি পায়নি। আদিবাসীদের উপর অত্যাচার, নির্যাতন, নিপীড়ন বন্ধ হয়নি। এই অবস্থার অবসান জরুরি বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর সহ-সভাপতি আব্দুল আহার মিনার।

আদিবাসী অধিকার আদায়ে যুব ফোরাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে আশা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ আদিবাসী নারী নেটওয়ার্কের সদস্য সচিব চঞ্চনা চাকমা।

সম্মেলনে আদিবাসী যুবদের জীবনমান টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে আদিবাসী যুব সংগঠন সমূহের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে রাষ্ট্র কর্তৃক আদিবাসী যুব উন্নয়ন নীতিমালা প্রণয়ন, আদিবাসী তরুণ ও যুব ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উচ্চশিক্ষা বৃত্তির ব্যবস্থা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে কোটা নিশ্চিত করা, আদিবাসী যুবদের জন্য কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা, কর্মক্ষেত্রে কোটা ব্যবস্থা ও তাদের প্রতি বৈষম্য দূর করা ও আদিবাসী কন্যা শিশু ও যুব নারীর প্রতি সকল ধরণের সহিংসতা বন্ধ ও সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ঘটে যাওয়া সহিংসতাগুলোর ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা সহ ৯ দফা দাবি পূরণের আহ্বান জানানো হয়।

সম্মেলনের শুরুতে প্রতিবাদী গান পরিবেশন করেন আদিবাসী নারী ব্যান্ড দল এফ মাইনর। দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সম্মেলন শনিবার শেষ হবার কথা রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here