চিম্বুকে হোটেল নির্মাণ বন্ধের দাবিতে সম্প্রতি ম্রো জনগোষ্ঠী লং মার্চ করেছে।

বান্দরবানের চিম্বুকে পাঁচ তারকা হোটেল নির্মাণ বন্ধ করতে বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। মঙ্গলবার জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের কার্যালয়ের (ইউএন হিউম্যান রাইটস: অফিস অব দ্য হাইকমিশনার) ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

জাতিসংঘের আদিবাসী বিষয়ক বিশেষ দূত ফ্রান্সিসকো কালি জে, চেয়ারম্যান দাঁতে পেস, ভাইস চেয়ারম্যান সূর্য দেবসহ কয়েকজন বিশেষজ্ঞ সরকারের প্রতি এ আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এই হোটেল বানানোর ফলে ওই এলাকার পরিবেশ এবং ম্রো জাতিগোষ্ঠীর জীবনযাপনে মারাত্মক হুমকি সৃষ্টি হতে পারে। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে বান্দরবান জেলায় ম্রোদের জমিতে রিসোর্ট নির্মাণ শুরু হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, জানুয়ারি থেকে আদিবাসী মানুষদের মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা কর্মীদের বিরুদ্ধে হুমকি ও ভয় দেখানোর প্রবণতা বাড়ছে। এসব মানবাধিকারকর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে আদিবাসীদের ভূমির অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করছেন। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অনুমতি, প্রতিবাদকারীদের হুমকি দেওয়া থেকে বিরত থাকা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশগুলোর বিরুদ্ধে শক্তিপ্রয়োগ থেকে বিরত থাকার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিশেষজ্ঞরা।

হোটেল নির্মাণের ফলে ওই অঞ্চলের ১০ হাজার মানুষ উচ্ছেদের ঝুঁকিতে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন বিশেষজ্ঞরা।

আদিবাসী অঞ্চলে এমন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নের আগে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের কাছে থেকে সম্মতি নিতে হবে। এই অঞ্চলে একটি পরিবেশগত ও সামাজিক প্রভাবের নিরীক্ষণ করাও জরুরি বলে জানান জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here